শনিবার , এপ্রিল 20 2024
bnen
Breaking News

প্রবাসী লোন, সকল প্রবাসীরা লোন পাবে ৩ থেকে ১০ লাখ টাকা probashi loan process 2024

কোনরকম জামানত ছাড়াই পাওয়া যাবে লোন সুবিধা হ্যাঁ আপনি ঠিকই শুনেছেন প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক প্রবাসীদের লোন দিচ্ছে সর্বোচ্চ তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত কোন প্রকার জামানত ছাড়াই পাশাপাশি সাধারণ লোন পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ ২০  লক্ষ টাকা পর্যন্ত ১০ বছরের জন্য তাই যে সকল প্রবাসী ভাইয়েরা লোন সুবিধা পেতে চান তাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, পাশাপাশি যারা সাধারন পার্সোনাল লোন নিতে চান তাদের জন্য রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আমি আপনাদেরকে বলবো ব্যাংক থেকে কত টাকা সর্বোচ্চ লোন নিতে পারবেন লোন নিতে কি কি ডকুমেন্টস লাগবে লোনের ইন্টারেস্ট রেট কত হবে মাসে কত টাকা ইএমআই বা কিস্তি দিতে হবে এই সকল বিস্তারিত তথ্য থাকবে শুরু করা যাক।

প্রথমেই আমরা জানবো প্রবাসী লোন কত প্রকার অর্থাৎ কোন কোন ক্ষেত্রে প্রবাসী লোন পেয়ে থাকে এক নম্বর হচ্ছে অভিবাসন ঋণ অভিবাসন ঋণ বলতে বোঝায় ভিসা পাওয়ার পর বিদেশ যাওয়ার জন্য যেই ঋণ নেওয়া হয় অর্থাৎ আপনি ভিসা পাওয়ার পরে যদি আপনি টাকার কারনে বিদেশ যেতে না পারেন সে ক্ষেত্রে আপনি এই অভিবাসন ঋণ নিতে পারবেন দুই নম্বর পূর্ণবাসন ঋণ অর্থাৎ আপনি বিদেশ যাওয়ার পরে যদি কোন কারণে দেশে ফিরে আসেন সেই ক্ষেত্রে আপনার এই বিদেশ যাওয়া এবং আসার মাঝে কিন্তু বেশ কিছু টাকা আপনার ব্যয় হয় যার কারণে আপনি কিন্তু দেশে ফিরে এসে সঠিক ভাবে চলতে পারবেন না এরকম ক্ষেত্রে যে ঋণ প্রদান করা হয় তাকে বলে পূর্ণবাসন ৩৩  নম্বর হচ্ছে বিশেষ পূর্ণবাসন ঋণ করোনাকালীন একটি বিশেষ ঋণ প্রদান করা হয় সেই ঋণের নাম হচ্ছে বিশেষ পুনর্বাসন রিং.

খুড়তুতো বঙ্গবন্ধু অভিবাসী বৃহৎ পরিবার ঋণ এই দিনটি অনেক সহজ এবং ঝামেলা ছাড়া তাই আমি আজকে এই বিশেষ দিন সম্পর্কে আপনাদেরকে বিস্তারিত জানাবো না বিদেশে থেকেও এপ্লাই করতে পারবেন এবং দেশে এসেও আপনারা এপ্লাই করতে পারবেন অর্থাৎ আপনারা যারা প্রবাসী ভাইরা রয়েছেন তারা খুব সহজেই আবেদন করতে পারবেন  এর আগে এই ঋণ নেওয়ার জন্য খুবই ঝামেলা পোহাতে হতো অর্থাৎ   এর পরে এই দিনটি অনেক ঝামেলা মুক্ত এবং খুবই কম ডকুমেন্টস এর মাধ্যমে ঋণ প্রদান করে থাকে আপনারা প্রয়োজনে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেখে নিতে পারেন চলুন দেখে আসি এই লোনের জন্য কারা কারা আবেদন করতে পারবে প্রথমত আপনাকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে এবং অবৈধভাবে চাকরির উদ্দেশ্যে বিদেশে থাকতে হবে অর্থাৎ আপনি যদি বৈধভাবে প্রবাসী হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন অর্থাৎ আপনি বিদেশে থাকা অবস্থায়.

মনের জন্য আবেদন করতে পারবেন অনেক সময় দেখা যায় বিদেশে যাওয়ার পরে তার পরিবারের জন্য অথবা তার নিজের জন্য টাকার প্রয়োজন হয়ে যায় সেক্ষেত্রে আপনি আপনার নিজের জন্য এবং আপনার আত্মীয়-স্বজন অর্থাৎ মা-বাবা-ভাই-বোন স্পাউস এবং সন্তান ইত্যাদি ব্যক্তিদের জন্য আবেদন করতে পারবেন দ্বিতীয়তঃ বিদেশ থেকে আপনি যদি বাংলাদেশে ছুটিতে আসলেন এবং এরকম একটি টাইমে যদি আপনার আর্থিক কোনো সমস্যা সৃষ্টি হয় অথবা আপনার পরিবারের জন্য আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন আপনার পরিবার বলতে মা বাবা ভাই বোন এবং এসপাউস সন্তান তাদের যদি কোনো আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন হয় সে ক্ষেত্রে আপনি ব্যাংকে গিয়ে আবেদন করতে পারবেন এখন চলুন দেখে আসি আপনি যদি এই লাইনটি নিতে চান তাহলে সর্বোচ্চ কত টাকা লোন নিতে পারবেন আপনি সর্বোচ্চ তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন নিতে পারবেন কোন রকম জামানত ছাড়াই অর্থাৎ আপনি এই তিন লক্ষ টাকার জন্য কোনরকম জামানত আপনাকে প্রদান করতে হবে না কিন্তু.

আপনার দুজন গ্যারান্টার লাগবে এই গানটার হতে পারবেন আপনার পরিবারের সদস্যগণ অথবা আপনার বন্ধু-বান্ধব অথবা আপনার আত্মীয়-স্বজন অথবা আপনার প্রতিবেশী এক্ষেত্রে আপনার গ্রান্ট অর্দের অবশ্যই সলভেন্ট হতে হবে দ্বিতীয়তঃ আপনি যদি তিন লক্ষ টাকার উপরে অর্থাৎ সর্বোচ্চ ৫  লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন নিতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে কিন্তু অবশ্যই জামানত রাখতে হবে পাশাপাশি দুজন গ্যারান্টার কিন্তু আপনাকে অবশ্যই দিতে হবে এই জামানত হিসেবে আপনার জমির দলিল ব্যাংকের কাছে জামানত হিসেবে রাখতে হবে অনেক সময় দেখা যায় যে আপনার ৫  লক্ষ টাকায় ও আপনার এই প্রবলেমটা সলভ হচ্ছে না সেখানে আপনাকে কিন্তু 5 লক্ষ টাকার বেশি লোন নিতে হতে পারে তার জন্য প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক আপনাকে ১০  লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দিয়ে থাকে এই পাঁচ লক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অরণ্যের ক্ষেত্রে আপনাকে আপনার সম্পত্তি ব্যাংকের নিকট রেজিস্ট্রি ম্যারেজ করে রাখতে হবে এখন পর্যন্তও ব্যাংকের সংশোধনী অনুযায়ী এই তিনটা ক্যাটাগরিতে ব্যাংক লোন দিচ্ছে একটি কথা বলে রাখি ব্যাংক কিন্তু যেকোনো.

তাদের নীতিমালা পরিবর্তন করে থাকে অর্থাৎ আপনার যদি লোন প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে আপনি ওয়েবসাইট থেকে আপডেট তথ্যটি দেখে নিবেন চলুন এখন আমরা দেখি এই লোনের জন্য এপ্লাই করতে হলে কি ধরনের ডকুমেন্টস ব্যাংকে জমা দিতে হবে প্রথমত আপনার পাসপোর্ট এর কপি লাগবে এবং সেইসাথে আপনি যে বাহিরে গিয়েছ সেই একটি প্রমান পত্র লাগবে অর্থাৎ আপনার পাসপোর্টে আপনি যে বাইরে গিয়েছেন এবং বাংলাদেশে এসেছেন এরকম যে এয়ারপোর্ট থেকে সিল মারা হয় সেই সিলসহ যে পাতাটি রয়েছে সেই রকমের স্ত্রী আপনাকে জমা দিতে হবে দ্বিতীয়ত ঋণের আবেদন ফরম ফিলাপ করতে হবে তৃতীয়তঃ আপনার ভিসা কপি অথবা আপনি যেখানে চাকরি করছেন সেটার একটি আইডি কার্ড একেক দেশে একেক রকম নাম বলে যেমন সৌদিতে আকামা বা এরকম বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন রকমের নামে এই আইডি কার্ড তাকে ডাকা হয় আপনি সেই ডকুমেন্টস এর একটি কপি সাবমিট করবেন চতুর্থ তো আপনাকে তিনটি চেক বইয়ের পাতা জমা দিতে হবে.

এবং প্রথমত আপনার গ্যারান্টার এর বিস্তারিত কাগজপত্র ফটোকপি জমা দিতে হবে এর পাশাপাশি আপনার আদার্স কিছু ডকুমেন্টস লাগতে পারে যেমন আপনি যদি তিন লক্ষ টাকার উপরে লোনের জন্য আবেদন করেন সেক্ষেত্রে আপনার জমির দলিলের কাগজপত্র এবং আপনি যদি 5 লক্ষ টাকার উপরে পারেন সেক্ষেত্রে মর্গেজ করার জন্য বেশকিছু আদার্স আনুষঙ্গিক ডকুমেন্টস লাগতে পারে এখন আসি লোনের সুদের হার এবং মেয়াদ সম্পর্কে প্রথমত আপনি যদি লোন এর জন্য আবেদন করেন সেক্ষেত্রে আবেদন ফরম আপনাকে ২০০  টাকার বিনিময় এটাকে পার্সেস করতে হবে এবং ১০০০  টাকা দিয়ে আপনাকে একটি কারেন্ট একাউন্ট ওপেন করতে হবে এই প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকে অর্থাৎ আপনার লোন পাস হওয়ার পরে এই একাউন্টেই আপনার লোনের টাকা প্রদান করা হবে এর পাশাপাশি লোনের প্রসেসিং ফি রয়েছে সেটি হচ্ছে আপনার লোনের ১৫  শতাংশ এবং এটি সর্বোচ্চ ৫  হাজার টাকা পর্যন্ত এ ক্ষেত্রে এই প্রবাসী লোনের সুদের হার কিন্তু ৯  পার্সেন্ট পাশাপাশি লোন এর মেয়াদ এক বছর থেকে সর্বোচ্চ পাঁচ বছর পর্যন্ত এই লোন নেওয়ার পরে আপনি.

মাস থেকে সর্বোচ্চ এগার মাস পর্যন্ত গ্রেস পিরিয়ড পাবেন এখন আমি আপনাদেরকে একটি এক্সাম্পল দেখাচ্ছি আপনি যদি নরেন এক লক্ষ টাকা লোন নিয়েছেন সেক্ষেত্রে আপনার ইন্টারেস্ট রেট ৯  পার্সেন্ট হবে এবং এটি যদি আপনি ১২  মাসের জন্য নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার মান্থলি ইএমআই হবে ৮ হাজার ৭৪৬  টাকা এবং আপনি এই ১  লক্ষ টাকায় যদি দুই বছরের জন্য নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার ইন্টারেস্ট হবে ৪৫৯৬  টাকা এবং আপনি যদি এটি পাঁচ বছরের জন্য নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার মান্থলি ইনস্টলমেন্ট হবে ২০৭৬  টাকা এই হচ্ছে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক এর বিস্তারিত তথ্য এর পাশাপাশি এই প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকে সাধারণদের জন্য পার্সোনাল লোন সর্বোচ্চ ২০  লক্ষ টাকা প্রদান করে থাকে এবং সেটি ১০  বছরের জন্য ।

About Sharo Place Desk

দীর্ঘদিন যাবত টেকনোলজি রিলেটেড কার্যক্রমের সাথে জড়িত আছি। আমার অভিজ্ঞতা থেকে এই ওয়েবসাইটটিতে টেকনোলজি, অনলাইন ইনকাম, টিপস এবং ট্রিকস, ই সার্ভিস, রিভিউ ও ব্যবসা রিলেটেড আর্টিকেল লেখালেখি করি।

Check Also

জমির দলিল দিয়ে ব্যাংক লোন

জমির দলিল দিয়ে ব্যাংক লোন নেয়ার সহজ পদ্ধতি

মর্টগেজ বা বন্ধকী লোন। জমির দলিল দিয়ে ব্যাংক থেকে যেই লোন নেয়া হয় তাকে মর্টগেজ …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।