শুক্রবার , এপ্রিল 19 2024
bnen
Breaking News

অল্প বয়সে সহজ উপায়ে ধনী হবার উপায় Ways to get rich quick

মনে করুন আপনাকে পয়েন্টে থেকে পয়েন্ট বি পর্যন্ত যেতে হবে পয়েন্টে হচ্ছে আপনার বর্তমান অবস্থা যেখানে আপনি একজন গরীব ব্যক্তি আর পয়েন্ট বিয়ে হচ্ছে আপনার ভবিষ্যৎ অবস্থান যেখানে আপনি একজন ধনী ব্যক্তি তো আপনি পয়েন্টে থেকে পয়েন্ট বি পর্যন্ত কি দিয়ে যেতে ভালোবাসবেন পায়ে হেঁটে নাকি সাইকেল দিয়ে নাকি গাড়ি দিয়ে যদি আপনি বোকা না হয়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই গাড়ি দিয়ে যেতে চাইবেন তবে বাস্তবে কেন আপনি পায়ে হেঁটে পয়েন্টে থেকে পয়েন্ট বি পর্যন্ত যাচ্ছেন আমাদের মধ্যে অধিকাংশ মানুষ জীবনে এ কাজ করে থাকে তারা হয় পায়ে হেঁটে না হয় সাইকেল দিয়ে যেতে বেশি ভালোবাসে যার ফলে তাদের ধনী হতে অনেক বছর সময় লেগে যায় ম্যাডাম আপনার কাছে গাড়ি আছে বাড়ী আছে ব্যাংকে অনেক টাকা আছে কিন্তু তখন আপনার বয়স হয়ে গেছে ৫০ বছর তো ওই সময় কি আপন আপনার জীবনের টাকা উপভোগ করতে পারবেন তখন তো আপনার একটা পা থাকবে কবরে আর আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষ এই কাজটি করে থাকে আমাদের মধ্যে অনেকেই ধনী হতে.

ঠিকই কিন্তু ৬০  থেকে ৭০  বছরের পর তখন তার জীবনে উপভোগ করার মত কিছুই থাকে না তাই আজ আমি আপনাদের কলিকাতা মিলিনিয়ার ফাস্টনেট বই থেকে এমন একটি পদ্ধতি সম্পর্কে বলছি পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি ২০  থেকে ৩০  বছর বয়সে ধনী হতে পারবেন তাহলে চলুন এই বইয়ের লেখকের যখন ২৬  বছর বয়স তখন তিনি একটা পার্কের সামনে দাঁড়িয়ে আইসক্রিম খাচ্ছিলাম সেই সময় তিনি দেখতে পান পার্কের সামনে একটা ল্যাম্বরগিনি কার চলতে চলতে এসে থামল লেখক চিন্তা করল গাড়ির মালিক নিশ্চয়ই কোন ৪০  থেকে ৫০  বছর বয়সের বৃদ্ধ লোক হবে কিন্তু গাড়ি থেকে ২৪  বছর বয়সের একজন যুবক বেরিয়ে এলো এবং অবাক হয়ে তিনি ওই ছেলেটিকে জিজ্ঞেস করে গাড়িটিকে আপনার নিজের ছেলেটি বলল গাড়িটি আমার আমার ইনকামের টাকা দিয়ে গাড়িটা কিনেছে তখন এমসিটি মার্কো তাকে আবার প্রশ্ন করল যে আপনি কি কাজ করেন ছেলেটি বলল আমি একজন ইনভেন্টর আর এটা বলেছি.

তখন এমজিডি মার্কো চিন্তা করল যে তাহলে কিনবো এস ধনী হওয়া সম্ভব তারপর সেই বিষয়টা নিয়ে বিচার শুরু করে সে জানার চেষ্টা করে যে আসলে কম বয়সে ধনী হওয়া সম্ভব কিনা তারপর তিনি রিসার্চ থেকে তিনটা রাস্তা খুঁজে পান যে তিনটা রাস্তার মাধ্যমে আমরা সাধারন মানুষ চলে থাকি প্রথম রাষ্ট্র আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে তৃতীয় রাখতে হচ্ছে ফার্স্ট নেটওয়ার্ক রাস্তাটি যারা চলতে পছন্দ করে তাদের মন-মানসিকতা হয় কিছুটা এমন যে যা করার আজকেই করেনি হাতে টাকা যা আছে সব খরচ করে ফেলি বন্ধুদের নিয়ে খাওয়া-দাওয়া মজ মাস্তি করে সব টাকা শেষ করে ফেলি আর দুই তিন দিন পর এর কাছে ওর কাছ থেকে ধার নিয়ে চলা শুরু করে আর মাস শেষে ফকিরের মত বেঁচে থাকে আসলে এই ধরনের মানুষের কোন ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নেই এজন্য তারা জীবনে ধনী হতে পারে না শেষ বয়স পর্যন্ত গরিবার মধ্যবিত্ত হয়ে থাকতে হয় আর দ্বিতীয় রাস্তাটি হচ্ছে স্কুলের আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষ নিজের জীবনের সবচেয়ে মূল্যবান.

টাইম বিক্রি করে অন্য কোম্পানিতে চাকরি করে আর চাকরি করতে করতে সারা জীবন শেষ হয়ে গেলেও তারা জীবনের ধনী হতে পারে না কারণ চাকরি করে জীবনে ধনী হওয়ার সম্ভাবনা চাকরির বেতনের সব টাকা বাড়িভাড়া সন্তানের খরচার মাসিক বাজারের মধ্যেই চলে যায় তবে এ নিয়ে যায় না হলে নিজের চিকিৎসার খরচ করতে হয় যার ফলে তাদের পক্ষে জীবনের ধনী হওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না শেষমেশ মধ্যবিত্ত হয়ে কষ্ট করে মরতে হয় এবার হচ্ছে ফাস্টলানে জীবন পরিচালনা করে তারা জানে যে টাকার চেয়ে সময়ের মূল্য বেশি সময় একবার হাত থেকে চলে গেলে এটা আর কখনো ফিরে আসেনা ফার্স্ট ম্যান এর লোকেরা টাকা বাঁচানোর চেয়ে টাকা কিভাবে বেশি ইনকাম করা যায় সেই বিষয়ে চিন্তা করে ফাস্ট ইয়ারের রুটিন আপডেট গ্রামের প্রতিবেশী প্রকাশ করে থাকে অন্যদিকে সার্কাস দলের লোকেরা বেশির ভাগ অ্যাক্টিভ ইনকাম করে থাকে.

কাজ করুক বা না করুক তাদের টাকায় হতেই থাকে তাই আমাদের ফ লোকের মত ভাবতে হবে তো আসলে লোক এদের মত ভাব তাহলে আমাদের আগে তিনটা বিষয় প্রকাশ করতে হবে প্রথমত হচ্ছে টাইম মানে সময় এমন কাজ খুঁজে বের করতে হবে যে কাজের সময় কম দেয়া লাগে কিন্তু বেশি টাকা আয় করা যায় যেমন ফ্রিল্যান্সিং বিজনেস আইটি ফার্ম আইটি ইন্সটিটিউট এ জব করা ইত্যাদি দ্বিতীয়তঃ হচ্ছে প্যাসিভ ইনকাম করতে হবে মানে এমন কাজ খুঁজে বের করতে হবে যেগুলোতে অসুস্থ থাকলে বা কাজ না করলে যেন টাকা আসে যেমন ব্লগিং ইউটিউবিং অনলাইন শপ এন্ড বিজনেস এর প্যাসিভ ইনকাম করতে পারেন তাহলে আপনি কাজ না করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন তৃতীয় বিষয়টি ওমানি টাকা থেকে ঢাকায় করতে হবে এর মানে আপনি কোন কাজ শুরু করেছেন এক মাস বা দুই মাস কাজ করার পর যা ইনকাম হয়েছে তার সব খরচ হয়ে যাচ্ছে তাহলে হবে না সব টাকা খরচ করা যাবে না আপনার মুনাফার অংশ

ইনভেস্ট করতাম ইনভেস্ট করে সেখান থেকে টাকা মেঘ বর্তমানে ঢাকা থেকে টাকা মেয়ে করার উপায় টা আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে মোট কত টাকা খরচ না করে সে টাকা দেয়ার টাকা আসার ব্যবস্থা করতে হবে তাহলেই আপনার ইনকাম এর ৫৮০  টাকা থেকে টাকা আয় করতে পারবেন যাইহোক আপনি যদি ফার্স্ট ম্যান এর এই তিনটি বিষয় মেনে চলতে পারেন তাহলে আপনি ২০ থেকে ৩০  বছর বয়সের মধ্যে ধনী হতে পারত , ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন আর আমাদের সাথেই থাকুন.

About Sharo Place Desk

দীর্ঘদিন যাবত টেকনোলজি রিলেটেড কার্যক্রমের সাথে জড়িত আছি। আমার অভিজ্ঞতা থেকে এই ওয়েবসাইটটিতে টেকনোলজি, অনলাইন ইনকাম, টিপস এবং ট্রিকস, ই সার্ভিস, রিভিউ ও ব্যবসা রিলেটেড আর্টিকেল লেখালেখি করি।

Check Also

গজল লেখা ছবি

গজল লেখা ছবি ডাউনলোড করুন

প্রিয় বন্ধুরা আসসালামুআলাইকুম গজল লেখা ছবি কিভাবে ডাউনলোড করবেন তার পদ্ধতি দেখানো হবে এই লেখাটিতে। …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।